সচেতনতা — যত্রতত্র শৌচকর্ম

ছবির দৃশ্যটি বলে দেয় যখন মানুষ কোনো বদভ্যাসে জড়িয়ে পড়ে তখন সেটা ছাড়া কঠিন।

এ কথা ঠিক আমাদের দেশে পাবলিক টয়লেটের পরিমাণ চাহিদার তুলনায় কম। কিন্তু এটাও ঠিক পাবলিক টয়লেট না পেয়ে রাস্তার ধারেই প্রাকৃতিক কাজ সেরে ফেলতে হবে – এটা সভ্য আচরণ নয়।
রাসূল ﷺ বলেছেন: তোমরা এমন দু’টি কাজ হতে বিরত থাক যা অভিশপ্ত। সাহাবীগণ জিজ্ঞেস করলেন: ইয়া রাসুলুল্লাহ! সেই অভিশপ্ত কাজ দু’টি কি? জবাবে রাসুলুল্লাহ (ﷺ) বলেন: মানুষের যাতায়াতের পথে কিংবা ছায়াযুক্ত স্থানে (বৃক্ষর ছায়ায় যেখানে মানুষ বিশ্রাম গ্রহণ করে) পেশাব পায়খানা করা।

ইসলাম এ বিধান দিয়েছে কারণ যেখানে সেখানে মানব বর্জ্য ত্যাগ সাধারণ মানুষকে কষ্ট দেয়, পরিবেশের ক্ষতি করে, এবং পানিবাহিত রোগ বিস্তারে সাহায্য করে।

সভ্যতা হচ্ছে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেয়ার সময় দৃষ্টির আড়ালে চলে যাওয়া।
জাবির (রাঃ) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন: একদা আমরা এক সফরে রাসূল (ﷺ) এর সাথে বের হলাম। রাসূল (ﷺ) মলমূত্র ত্যাগের জন্য এতদূর যেতেন যে, তাকে কেউ দেখতে পেত না।

যেখানে সেখানে মল বা মূত্র ত্যাগ তাই শুধু অশোভনই নয়, ইসলামের দৃষ্টিতে একটা হারাম বা নিষিদ্ধ কাজ। আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা যেন এ জাতিকে টয়লেটের বাইরে শৌচকর্ম করার অসভ্যতা থেকে রক্ষা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *