আসছে রমাদান . .

আলী ইবন হুসাইন ইবন আলী ছিলেন রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের নাতি হুসাইন রাদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহুর ছেলে।
তিনি যখন মারা গেলেন তার লাশ ধোয়ার সময় দেখা গেল পিঠে দাগ।
কীসের দাগ?
দেখে মনে হচ্ছে ভারী কিছু বহন করার দাগ।
কিন্তু তাকে তো কেউ বোঝা বহন করতে দেখেনি। 
কয়েকদিন পরে মদীনার প্রায় ৬০টা পরিবার বলাবলি শুরু করল একজন মানুষকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।
কে সে?
সেই মানুষটিকে তারা চেনে না তবে সে রাতের অন্ধকারে এসে খাবারের বস্তা দিয়ে যেত।
বেশ কয়েকদিন তারা কোনো খাবার পাচ্ছে না।
এরপর দুয়ে দুয়ে চার মিলিয়ে বোঝা গেল তিনি ছিলেন আলী ইবন হুসাইন ইবন আলী, রাহিমাহুল্লাহ।
ওই যে পিঠের দাগ – সেগুলো হয়েছিল গভীর রাতে খাবারের বস্তা বহন করতে গিয়ে।
তাঁর ইবাদাতে এত নিষ্ঠতা ছিল যে কেউ সেই ইবাদাতের খবর জানত না।
মানুষ ভালোবেসে তাকে উপাধি দিয়েছিল ‘যাইনুল আবিদিন’, অর্থাৎ সুন্দর ইবাদাতকারী।
সামনে রমাদান মাস আসছে।
আমরাও যেন খাবার নিয়ে কিছু মানুষের দ্বারে যাই। চুপ করে তাদের ঘরের দরজায় রেখে আসি।
আল্লাহ যেন আমাদের শুধু তার জন্য চুপিসারে কিছু ভালো কাজ করার সামর্থ্য দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *