যয়তুন নিয়ে যতো গবেষণা

jaitun.new

অলিভ অয়েল নিয়ে বিজ্ঞানীদের বিশাল সব গবেষণা আছে। কিন্তু কেন?

কারণ অলিভ অয়েল স্যাচুরেটেড ফ্যাটি অ্যাসিড খুব কম থাকে। ফলে এ তেল রক্তের LDL (হৃদরোগের জন্য ক্ষতিকর) কমায় এবং HDL(হৃদরোগের উপশমে উপকারী) বাড়ায়।

LDL হলো এক ধরণের লিপোপ্রোটিন যা রক্তনালীতে প্ল্যাক সৃষ্টিতে কাজ করে। এই প্ল্যাক বড় হতে হতে একসময় রক্তনালী ব্লক করে ফেলে। যখন হৃদপিন্ডের রক্তনালীতে ব্লক দেখা দেয় তখন হৃদপেশীগুলো অক্সিজেন এবং গ্লুকোজের অভাবে মারা যেতে থাকে। সহজ কথায় এটাকেই হার্ট অ্যাটাক বলে।

HDL এর কাজ LDL এর পুরো উল্টো। সে রক্তনালীতে যেখানে যেখানে প্ল্যাক তৈরি হয়েছে সেখান থেকে কোলেস্টেরলকে কোলে করে বয়ে নিয়ে যায় – ফলে প্ল্যাক বড় হতে পারে না, রক্তনালী বন্ধও হতে পারে না।

এছাড়াও অলিভ অয়েলে হরেকরকম প্রাকৃতিক উপাদান থাকে যা রক্তনালীকে প্রশস্ত করে এবং রক্তনালীতে ব্লক তৈরিতে বাধা দেয়।
শীতকাল সবজির সময়। টমেটো, গাজর কিংবা বাধাকপি কাঁচা কিংবা ভাপে অল্প সিদ্ধ করে অলিভ অয়েল দিয়ে মেখে খেতে পারেন। হৃদরোগের জন্য একগাদা ওষুধ খাওয়া থেকে এই সালাদ খাওয়া অনেক ভালো হবে।

মজার ব্যাপার হচ্ছে আমরা আজ বৈজ্ঞানিক তথ্য দিয়ে আবিষ্কার করছি যে অলিভ অয়েল আমাদের শরীরের জন্য কত ভালো। কিন্তু রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম প্রায় পনেরশ বছর আগেই বলে গেছেন,
“তোমরা যায়তুনের তেল খাও এবং মাখ, নিশ্চয় এটা বরকতমত গাছ থেকে।” [তিরমিযী, আহমাদ]

সরোবরের যয়তুন তেল অর্ডার করতে পারেন ঘরে বসেই:
https://goo.gl/Jjnqj6

Total number of views: 117

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedintumblrmailFacebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedintumblrmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *